Search

HOME / পাইলস হওয়ার লক্ষণ আর কারণসমূহ

পাইলস হওয়ার লক্ষণ আর কারণসমূহ

Tanuja Acharya | সেপ্টেম্বর 18, 2018

BLOG TAGS

Health Information

পাইলস হওয়ার লক্ষণ আর কারণসমূহ

পাইলস অথবা বাংলায় আমরা যাকে বলি অর্শ , যা ভাস্কুলার কুশন এর আকারে দেখা যায় মলদ্বার এর কাছে । অর্শ বা পাইলস হলো পায়ুপথে এবং মলাশয়ের নিম্নাংশে অবস্থিত প্রসারিত এবং প্রদাহযুক্ত শিরা । এটা আমাদের মল পরিষ্কার হতে ও নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে ।  যখন এই অর্শ অতিরিক্ত পরিমাণে ফুলে ওঠে এবং তাদের মধ্যে থাকা রক্তবাহী শিরাগুলি বাড়তে থাকে, তখন এর ফলে ব্যথা, রক্তপাত, চুলকানি হতে পারে , এটি একটি লক্ষণীয় উপসর্গ পাইলস রোগের
পাইলস খুব সাধারণ একটি রোগ , ৭০% ভারতীয় এই রোগের দ্বারা পীড়িত । সাধারণত বেশিরভাগ সময় পাইলস ছোট আকারে থাকার ফলে এর কোনো উপসর্গ প্রকাশ পায়না  ফলে মানুষ বুঝতেই পারেনা তার পাইলস আছে ।

 

কারণসমূহ

এই অর্শরোগের কারণ এখনও পরিষ্কার নয় । কিন্তু চিকিৎসকদের মতে তল পেটে অত্যাধিক চাপের ফলে এই রোগ হয়।

 

এই চাপ সৃষ্টি হওয়ার কিছু কারণ:

  • অত্যাধিক চাপ দেওয়া মল ত্যাগ করার সময়
  • ভারি জিনিস তোলা
  • খুব ঝাল এবং মশলাযুক্ত খাবার খাওয়া
  • বয়স হওয়ার ফলে কোষ দুর্বল হয়ে যাওয়া
  • কোলোরেক্ট্রাল ক্যান্সার
  • বহুদিনের কাশি
  • প্রস্রাবে দেরী করা
  • বার বার বমি করা
  • পায়ু সেক্স
  • প্রদাহজনক পেটের রোগ
  • কোষ্ঠকাঠিন্য
  • ব্যায়াম এর অভাব

  • কম ফাইবার যুক্ত খাবার
  • লিভার এর সমস্যা
  • শিরদাঁড়ায় চোট বা
  • ডায়রিয়া

যদিও এই গুলো সাধারণ সমস্যা পাইলস এর ,  এটা অনেকসময় বংশগত বা জিন গত হতে পারে ।

 

লক্ষণ

সাধারণ কিছু পাইলস এর লক্ষণ হল:

  • লাল হওয়া , ফুলে যাওয়া , আর চুলকানি অনুভব করা মলদ্বার ঘিরে
  • শক্ত পিণ্ড গজিয়ে ওঠা মলদ্বারে , এই পিণ্ড হল জমাট বাধা রক্ত আর এটা খুব বেদনাদায়ক
  • মল ত্যাগ করার সময় রক্ত পরা , এটায় ব্যাথা হয় না ,এই রক্তের রঙ টকটকে লাল হয়
  • মলদ্বারের জায়গা ফুলে ওঠা
  • সর্বক্ষণ ব্যাথা আর অস্বস্তি মলদ্বারে
  • মল এর ঠিক মতো বেগ না পাওয়া
  • মল ত্যাগ করার সময় ব্যাথা
  • অর্শ মলদ্বার থেকে বাইরে দিকে ঠেলে বেরিয়ে আসতে চায়

অবস্থা আরো অবনতি  হওয়ার কিছু লক্ষণ

  • মলদ্বার দিয়ে অতিরিক্ত রক্ত ক্ষয় যা অ্যানেমিয়া বা রক্তাল্পতা তে পরিণীত হয়
  • সংক্রমণ
  • মল নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা হ্রাস পায় , যাকে বলে ফেকাল অসংযম ,  মলদ্বারের পথ ছোট হয়ে যাওয়া
  • মলদ্বারের ভিতরে এবং এর কাছাকাছি চামড়ার মধ্যে ফিস্টুলা বা ভগন্দর রোগ হওয়া
  • রক্ত জমে যাওয়া কারণ অর্শ দ্বারা রক্ত সঞ্চালন এ বাধা পরা
  • মল দিয়ে কফ বেরনো
  • মলদ্বারে মাঝে মাঝে খিঁচুনি অনুভব করা
  • মলদ্বার ভেতর থেকে স্থায়ী ভাবে বেরিয়ে এসে মলদ্বারের বাইরে থাকা

 

পাইলস নিজে থেকেই সেরে যায় জীবন যাপনে কিছু পরিবর্তন আনলে । সব থেকে বড় পরিবর্তন যেটা নিয়ে আসা উচিত , সেটা হল :

১। প্রচুর পরিমানে জল আর ফাইবার জাতীয় খাবার খান

 

২। প্রস্রাব পেলে সঙ্গে সঙ্গে যান ,  আটকে রাখবেন না

 

৩। ওজন কমান

 

৪। ঝাল খাবার খাওয়া কমান

 

এই সব পরিবর্তন যদি কোনও তেমন প্রভাব না ফেলে , যদি রক্ত ক্ষয় আর ব্যাথা তখনও হয় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন । চিকিৎসক জায়গা টা পরীক্ষা করে দেখবেন , সঠিক অবস্থা বুঝে চিকিৎসা শুরু করবেন ।

Image sources: Wikimedia, Pexels and Pixabay